জার্মান রাজনীতিতে Nazi style এ চরম ডানপন্থীদের উত্থান এবং পুরো ইউরোপে এর প্রভাব

জার্মান রাজনীতিতে Nazi style এ চরম ডানপন্থীদের উত্থান এবং পুরো ইউরোপে এর প্রভাব

366
0
ছবিঃ সংগৃহীত

জার্মান রাজনীতিতে Nazi style এ চরম ডানপন্থীদের উত্থান এবং পুরো ইউরোপে এর প্রভাব বিস্তৃত হচ্ছে জার্মানে আশ্রয় দেয়া রিফিউজিদের বিরুদ্ধে চরম ডানপন্থীদের violent demonstration এর প্রক্ষাপটে জার্মান চ্যান্চেলর এ্যাঙ্গেলা মার্কেল জার্মান সংসদে চরম ডানপন্থীদের নাজি স্টাইলে করা ডেমোনেস্ট্রেশনের এর তীব্র সমালোচনা করেন এবং জাতিকে দ্বিধাবিভক্তির নিন্দা জ্ঞাপন করেন।

গত বুধবারে Bundestag এ অনুষ্ঠিত সংসদের এই কোলাহলপূর্ণ অধিবেশনে Social Democrat রা (SPD) চরম ডানপন্থী Alternative for Germany (AFD) ডেপুটিদের অরুচিকর এবং মৌলবাদী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। গত দুই সপ্তাহ পূর্বে জার্মানের পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত Chemnitz শহরে একজন জার্মানের ওপর knife attack এর জন্য ডানপন্থীরা দুইজন migrants কে দায়ী করে আসছিলেন।এরই পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৫ তে এ্যাঙ্গেলার দশ লক্ষ রিফিউজিকে আশ্রয় দেয়ার বিষয়টি নতুন করে ডানপন্থীরা জনসমক্ষে এনে সমালোচনার ঝড় তুললেন।

Bundestag অধিবেশনে মার্কেল এ্যাঙ্গেলা ডানপন্থীদের প্রতিবাদের উত্তরে তাঁর তেজদ্বীপ্ত বক্তৃতায় যা’ বললেন, “শুধুমাত্র ভিন্ন বর্নের কারনে বা ইহুদি রেস্টুরেন্ট থাকার কারনে নাজি শ্লোগান উত্থাপন করে দেশহিতৈষিতার নামে কাউকে single out করে তাড়িত করা উচিত নয়।” Merkel আরও বলেন, “ ইহুদী, মুসলমান, খ্রীষ্টান এবং অবিশ্বাসীগন সবাই জার্মান এবং মানবতা শ্রেষ্ঠতর ধর্ম।আমরা কোনো গ্রুপকে জার্মান সোসাইটির বাইরে রাখতে পারিনা।” অপরদিকে far-right group Alternative for Germany (AFD) লীডার Alexander Gauland বলেন, “জার্মানের অভ্যন্তরীণ শান্তি হুমকির মুখে।

Chemnitz শহরে দুই জন রিফিউজি কর্তৃক যে রক্তাক্ত ঘটনা ঘটেছে তা’ জার্মানদের জন্য অত্যন্ত মারাত্মক ঘটনা।” জনাব Garland প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে এ্যাঙ্গেলা মার্কেল গুজব ছড়াচ্ছেন বলে পার্লামেন্টে উত্তপ্ত বক্তব্য রাখেন। Chemnitz শহরে যারা জার্মান নাগরিককে ছুরিকাহত করেছে তাদেরকে প্রতিবাদকারীরা কেহ তাড়া করেনি।প্রতিবাদ rally’র ভিডিও ফুটেজই তার প্রমান বহন করবে। Gauland আরও যা’ বলেন, “মার্কেল তুমি দেশকে একগুয়েমিতা, গোড়ামীতা বা অবমাননা ছাড়া কিছুই দিতে পারোনি।তুমি বাস্তবতা থেকে বহুদূরে।”

সিনিয়র সোসাল ডেমোক্র্যাট Johannes ডানপন্থী মৌলবাদীদের উদ্দেশ্যে তীর্যক বাক্যবাণ ছুঁড়ে দেন, “ তোমাদের বক্তব্য অরুচিকর।ঘৃনা ছড়ানোতে তোমাদের কুৎসিত দেখাচ্ছে।আয়নায় তাকালে তোমরা লজ্জা পাবে।” Johannes এর উপরোক্ত বক্তৃতার পর AFd ডেপুটিগন দাঁড়িয়ে যান এবং প্রতিবাদে চেম্বার ত্যাগ করেন।এক স্টেটমেন্টে Alternative for Germany (AFD) Johannes এর আপত্তিকর বক্তব্য এবং তাদেরকে নাজিদের সাথে তুলনা তাদের জন্য অপমানকর এবং অগ্রহণযোগ্য বলে অভিহিত করেছেন। এদিকে পুরো ইউরোপ এখন চরম ডান এবং উগ্রপন্থী জাতীয়তাবাদের দিকে পশ্চাদাপসারনে রয়েছে বলে দেখা যাচ্ছে। ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে গত বৃহস্পতিবার হাঙ্গেরীর বিরুদ্ধে ৪৪৮-১৯৭ ভোটে sanction proceedings পাশ করে।হাঙ্গেরিয়ান সরকার যেটিকে গনতন্ত্রের পশ্চাদাপসরন হিসেবে উল্লেখ করেছে।হাঙ্গেরিয়ান প্রধানমন্ত্রী ইউরোপিয়ান মূল্যবোধ হুমকির মুখে রয়েছে বলেও অভিহিত করেন।এই sanction এর ফলে হাঙ্গেরী মূলত: ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে সিদ্ধান্ত গ্রহন প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়ার অধিকার হারাবে। ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে বেলজিয়াম সদস্য জনাব Guy Verhopstadt বলেন, “ডানপন্থী উগ্রবাদী ধারনা ইউরোপিয়ান ইউনিয়নকে বিশ্বের কাছে খাটো করছে।এরা মূলত: ইউরোপীয় রাজনীতিকে ইউরোপ থেকে বাদ দিতে চাচ্ছে।” হাঙ্গেরিয়ান পররাষ্ট্র মন্ত্রী Peter Szijjarto ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের এই সিদ্ধান্তকে মাইগ্রেশন-সমর্থক রাজনীতিকদের ওপর প্রশোধ হিসেবে দেখছেন।হাঙ্গেরী এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ফাইট করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে।

১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মোঃ শফিকুল আলম
রাজনৈতিক বিশ্লেষক

Facebook Comments

You may also like

ঋনযুদ্ধে পর্যুদস্ত এক বঙ্গবীর

ফজলুল বারী:নির্বাচনের মনোনয়নের প্রাথমিক বাছাই পর্বে বিশেষ কিছু