সিডনির বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত চিকিৎসক শরীফ ফাত্তাহকে ১৬ বছর ৬ মাসের জন্য দণ্ডিত

সিডনির বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত চিকিৎসক শরীফ ফাত্তাহকে ১৬ বছর ৬ মাসের জন্য দণ্ডিত

0

২ আগস্ট শুক্রবার , সিডনির নিউ সাউথ ওয়েলস ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট পাররামাট্টা আদালত বিভিন্ন সময়ে চিকিৎসা নিতে আশা ১০ জন মহিলা রোগীর সাথে যৌন অসদাচরণের কারণে অভিযুক্ত হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সিডনির বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত চিকিৎসক শরীফ ফাত্তাহ । বিচারক তার অপরাধের জন্য সর্বমোট ১৬ বছর ৬ মাসের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন এবং ২০২৮ সালে প্যারোলে মুক্তি পাবার যোগ্যতা অর্জন করবেন।

ডাঃ শরীফ ফাত্তাহ ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে মার্চ ২০১৭ পর্যন্ত সাউথ ওয়েস্ট সিডনির ক্যামডেনের একটি হেলথ কেয়ার সেন্টারে জিপি হিসেবে কর্মরত ছিলেন এবং এই ছয় মাসের মধ্যে ১০ জন মহিলা রোগীর সাথে যৌন অসদাচরণের করেছিলেন যা আদালতে প্রমাণিত হয়েছে।

ইতিপূর্বে, গত গত ১৪ মে সিডনি ডিস্ট্রিক্ট আদালত যৌন অপরাধের দায়ে ৬৩ বছরের বয়স্ক এই চিকিৎসককে অভিযুক্ত করে রায় দিয়েছে।
তখন এই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ১৬ জন নারী, যাদের বয়স ১৯ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে , তারা আঠারোটি অভিযোগ এনেছিল। অভিযোগ গুলোর মধ্যে অনুমতি ছাড়াই শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর অংশে স্পর্শ করা এমনকি অনুমতি ছাড়াই চিকিৎসাধীন নারী রোগীর সাথে যৌন সম্পর্ক স্থাপন ইত্যাদি। এর মধ্যে ১৯ বছরের এক নারী ভাঙ্গা আঙুলের চিকিৎসা নিতে এসেছিল কিন্তু এই চিকিৎসক তার শরীরের গোপন অঙ্গগুলোতে পরীক্ষা করেন। এই রায় দেয়ার সময় অনেক অভিযোগ যারা এনেছিলেন তারা অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।
এই রায় দেয়ার সময় বিচারক হ্যারিস বলেন ,”চিকিৎসক এবং রোগীদের যে সম্পর্ক সেই বিশ্বাস তিনি রাখেন নি এবং তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ার পরও কৃতকর্মের জন্য নূন্যতম দুঃখ প্রকাশ করার পরিবর্তে বার বারই নিজেকে নিরপরাধী বলে দাবি করেছেন। ”

সূত্রঃ এবিসি নিউজ

Facebook Comments

You may also like

আওয়ামীলীগ অস্ট্রেলিয়ার ‘তৃণমূলের রাজনীতি ও বাংলাদেশের সমসাময়িক’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

গত ১৪ অক্টোবর, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সিডনিস্থ