র‍্যান্ডউইক কাউন্সিল কর্তৃক “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস” উদযাপন এবং লাইব্রেরীসমূহে “একুশে কর্নার” প্রতিষ্ঠার নীতিগত সিদ্ধান্ত

র‍্যান্ডউইক কাউন্সিল কর্তৃক “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস” উদযাপন এবং লাইব্রেরীসমূহে “একুশে কর্নার” প্রতিষ্ঠার নীতিগত সিদ্ধান্ত

0

বিগত ৩০শে সেপ্টেম্বর’১৯ সোমবার সকাল ১০ ঘটিকায় সকল ভাষাভাষীর মাতৃভাষা, সংস্কৃতি এবং কৃষ্টির চর্চা এবং সংরক্ষণের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে স্থানীয় সরকার কর্তৃক “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস” উদযাপনের পাশাপাশি প্রত্যেকটি লাইব্রেরীতে “একুশে কর্নার” প্রতিষ্ঠার গুরুত্বের বিষয়টি উপস্থাপনের জন্য স্থানীয় র‍্যান্ডউইক কাউন্সিলের সাথে এমএলসি মুভমেন্ট ইন্টারন্যাশনাল ইনকের দ্বিপাক্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় কাউন্সিলের উদ্যোগে আগামী ২১শে ফেব্রুয়ারি’২০ থেকে “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস” উদযাপন এবং কাউন্সিলের প্রতিটি লাইব্রেরীতে “একুশে কর্নার” দর্শনের বাস্তবায়নের বিষয়ে নীতিগতভাবে ঐক্যমতে পৌঁছে।

এমএলসি মুভমেন্টের উপস্থাপনার পর কাউন্সিলের পক্ষে প্রাথমিক ভাবে আসছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’২০ উদযাপন উপলক্ষে সকল ভাষাভাষীদের সমন্বয়ে বিভিন্ন ভাষার বই, প্রকাশনা ইতাদি প্রদর্শনীর ব্যবস্থার পাশাপাশি ‘লা পেরুজ’ লাইব্রেরীতে আদিভাষা্ সমুহের বর্ণমালা বা শব্দাবলী সংগ্রহের মধ্য দিয়ে “একুশে কর্নার” প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ঐক্যমতে পৌঁছান এবং পর্যায়ক্রমে সকল ভাষাভাষীর আগ্রহ এবং অংশগ্রহণ নিশ্চিতকরার মাধ্যমে কউন্সিলের কেন্দ্রস্থলে “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস স্মৃতিসৌধ” নির্মাণের পরিকল্পনার যথার্থতা বিশ্লেষণ করেন। কাউন্সিলর ডিলান পার্কার সভার ঐক্যমতের বিষয়টি প্রথানুযায়ী কাউন্সিলের সাধারণ সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে উপস্থাপন করবেন, এবং সিদ্ধান্ত চূড়ান্তের বিষয়টি এমএলসি মুভমেন্টকে নিশ্চিত করবেন।

এমএলসি মুভমেন্টের পরিচালক(গবেষণা)জনাব আজাদুল আলম এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক সভায় কাউন্সিলর ডিলান পার্কার এর নেতৃত্বে কাউন্সিলের পরিচালক(সিটি সার্ভিসেস)জনাব টড ক্লার্ক, এবং জনাব বারবারা টোডস, ম্যানাজার লাইব্রেরী সার্ভিসেস উপস্থিত ছিলেন।              

 

Facebook Comments

You may also like

আওয়ামীলীগ অস্ট্রেলিয়ার ‘তৃণমূলের রাজনীতি ও বাংলাদেশের সমসাময়িক’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

গত ১৪ অক্টোবর, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সিডনিস্থ