ভিক্টোরিয়ান বাংলাদেশী কমিউনিটি ফাউন্ডেশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত !

ভিক্টোরিয়ান বাংলাদেশী কমিউনিটি ফাউন্ডেশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত !

0

বিপুল জনসমাগমের মধ্য দিয়ে গত রবিবার ২রা মে টার্নেট রাইজ প্রাইমারি স্কুলের জিমনেশিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল মেলবোর্নের স্বনামধণ্য কমিউনিটি সংগঠন ভিক্টোরিয়ান বাংলাদেশী কমিউনিটি ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মাহফিল। সংগঠনটির ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সেক্রেটারি পিনাকী ঘোষ জানিয়েছেন যে শুধু বাংলাদেশী কমিউনিটিই নয়, এই ইফতার আয়োজনে মাল্টিকালচারাল কমিউনিটির প্রতিনিধিরাও অংশগ্রহণ করেছেন। ছিলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও।

প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই ভি.বি.সি.এফ. এই আয়োজনটি করে আসছে। সময়ের পরিক্রমায় তাদের এই ইফতার আয়োজনটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

পিনাকী ঘোষ আরও জানিয়েছেন যে তিনিসহ সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট জনাব ইউসুফ আলীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে সকল এক্সিকিউটিভ মেম্বারদের কয়েকদিন ব্যাপী অক্লান্ত পরিশ্রমেই এই আয়োজনটি সফলতা লাভ করেছে। জনাব ইউসুফ আলী এবং এডভাইজারি কমিটির মেম্বার জনাব সৈয়দ আব্দুল কুদ্দুসসহ রান্নার আয়োজনে ছিলেন জনাব মোর্শেদ কামাল, জনাব মিজানুর রহমান, রুদাবা আলম, জনাব মামুন আল বদরুদ্দোজা পলাশ, নুসরাত ইসলাম বর্ষা প্রমুখ। তাদের সহায়তায় ছিলেন জাহিদ মজুমদার, পিনাকী ঘোষ, কাজী মোহাম্মদ মাকসুদ হোসেন বাপ্পী, জামিল শওকত, রিমন চক্রবর্তী, গোলাম রহমান, সৈয়দ রিপন, মাসিকুর রহমান সোহাগ এবং ইফতেখার ইফতিসহ অনেকেই। এছাড়া কমিউনিটির অনেকেই স্বউদ্যোগে ইফতার সরবরাহ করেছেন। ইফতারের মেনু ছিল মুড়ি, ছোলা, পিঁয়াজু, জিলাপি, খেজুর, আঙ্গুর, তরমুজ, হালিম এবং তেহারি।

ইফতার অনুষ্ঠানে ভি.বি.সি.এফ. এর সেক্রেটারির পরিচালনায় ছোটদের কুরআন পাঠ এবং দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। কমিউনিটির অনেককেই ইফতার সাজানো এবং পরিবেশনায় সতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। ভি.বি.সি.এফ. এর প্রেসিডেন্ট জনাব ইউসুফ আলী, জেনারেল সেক্রেটারি জনাব জাহিদ মজুমদার এবং ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সেক্রেটারি জনাব পিনাকী ঘোষ কমিউনিটির সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন এই আয়োজনে সতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করে একে সাফল্যমন্ডিত করার জন্য। ভবিষ্যতেও সংগঠনটি অব্যাহতভাবে ইফতার মাহফিল আয়োজন করে যাবে বলে তাঁরা আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

Facebook Comments

You may also like

ভ্যাকসিন দেয়ার পরেও কেন করোনা আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ ?

আমেরিকার স্বাধীনতা দিবস ছিল ৪ জুলাই , আর