মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্পবেলটাউনের মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত !

মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্পবেলটাউনের মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত !

মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্পবেলটাউন ২৪ সেপ্টেম্বর শনিবার ক্যাম্পবেলটাউন স্পোর্টস স্টেডিয়ামে তাদের আয়োজনে অনুষ্ঠিতব্য দিনব্যাপী মাল্টিকালচারাল ফেস্টিভাল ২০২২ কে সফল এবং অধিকতর উপভোগ্য করার নিমিত্তে ক্রিয়াশীল সকল কমিউনিটি নেতৃত্বের সাথে স্থানীয় একটি রেঁস্তোরায় মতবিনিময়সভায় মিলিত হোন।
সংগঠনের জেনারেল সেক্রেটারী সফিকুল আলম সফিক তাদের গৃহীত কর্মসূচীর সংক্ষিপ্ত বর্ননা করে উপস্থিত কমিউনিটি সদস্যবর্গের মতামত চাইলেন।

জনাব সফিক দেশের ট্রেডিশনাল কাস্টোডিয়ান, তাদের সিনিয়রস, পূর্ব পুরুষ এবং বর্তমান প্রজন্মকে এ্যাকনলেজ করে তার কথা শুরু করেন। তিনি এ্যাবোরিজিনাল এবং টোরিজ স্ট্রেইট আইল্যান্ডারদের প্রতিও সম্মান প্রদশর্ন করেন।

জনাব সফিক তার ব্রিফিংএ বলেন যে ইউনেস্কো মাল্টিকালচারাল ফেস্টিভাল উজ্জাপনের নেতৃত্ব দিচ্ছে শুধুমাত্র বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সমৃদ্ধ সংস্কৃতির কথা জানাতেই নয় বরং বিভিন্ন দেশের মধ্যে সংস্কৃতি বিনিময় এবং পারষ্পরিক জানার এবং কাছাকাছি আনায়নের জন্য। ইউনেস্কো বিশ্বাস করে এর মধ্য দিয়েই বিশ্বে টেকসই শান্তি এবং সমৃদ্ধি নিশ্চিত করা সহজতর হবে।

সফিক বলেন, “বিশ্বে সাধারণতঃ মাল্টিকালচারাল ফেস্টিভাল ২১ মে পালিত হয়। অস্রেলিয়াতে হারমোনিডে হিসেবে ২১ মার্চ পালিত হয়। কোভিড-১৯ বিধিনিষেধের কারনে আমরা এই উৎসব এবছর ২৪ সেপ্টেম্বর পালন করছি।”
তিনি বলেন, “বহুজাতিকতার বহু সুবিধা রয়েছে। অন্যতম প্রধান সুবিধা হচ্ছে বিভিন্ন জাতিক জনগোস্ঠীকে উদার মানসিকতায় সংযুক্তিতে উৎসাহিতকরন এবং নেতিবাচক চরিত্রকে উবে ফেলতে সহায়তাকরন।”

মিঃ সফিক আরও বলেন, “আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি বহুজাতিকতা বিভিন্ন সংস্কৃতির মধ্যে সংহতি স্থাপন করে। পারষ্পরিক অভিপ্রায়/অভিব্যক্তি বিনিময়ে নতুন নতুন আবিষ্কার নিশ্চিত করে উন্নততর সমাজ প্রতিষ্ঠা, সম্পর্কোন্নয়ন হতে পারে। এই বিনিময় বিশ্বের দৃষ্টিকোন পাল্টে দিতে পারে।”

সফিকের মতে যেভাবে বহুজাতিকতার ব্যাপ্তি সম্প্রসারিত করা যায়ঃ

– বিভিন্ন কালচারাল ফেস্টিভাল উজ্জাপন করে;
– বহুজাতিক ফুড ফেয়ারের আয়োজন করে;
– ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহ কালচারডে হোস্ট করতে পারে
– স্কুলগুলোতে মোটিভেশনাল স্পিকার (নানান কালচারাল ব্যাকগ্রাউন্ডের) ছাত্র/ছাত্রীদেরকে তাদের স্ব স্ব কালচারের ব্যাপারে উৎসাহিতকরনের মাধ্যমে ইত্যাদি।

জনাব সফিক অনুষ্ঠিতব্য ফেসিটিভাল দিবসের কিছু আগাম কর্মসূচীর ঘোষনা দিয়েছেন; কিন্তু যুক্তিসংগত সময়ের পূর্বে রান-শিটের বিস্তারিত প্রকাশ করা হবে বলে জানানঃ

– ২৪ সেপ্টেম্বর শনিবার ২০২২ সকাল ১০টায় ক্যাম্পবেলটাউন স্পোর্টস স্টেডিয়ামের গেট সাধারনের জন্য খোলা হবে;
– ৫ ডলারের এন্ট্রিফিস্ রয়েছে;
– ৬ বছরের নীচের শিশুদের ফ্রি-এন্ট্রি থাকবে;
– ভেন্যূতে বহুজাতিক ফুড ফেয়ার থাকবে;
– ক্লোদিং স্টল থাকবে;
– ফেইস পেইন্টিং থাকবে;
– লোকাল বিজনেজ/কর্পোরেট প্রমোশন স্টল থাকবে ইত্যাদি

কালচারাল প্রোগ্রাম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবেঃ

– বিকেল ০১ঃ০০ ঘটিকাঃ অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল এ্যান্থেম(আল-ফয়সাল স্কুল)
– বিকেল ০১ঃ০৫ ঘটিকাঃ আংকেল আইভান দেশের ট্রেডিশনাল কাস্টোডিয়ানদের এ্যাকনলেজ করবেন;

– বিকেল ০১ঃ১০ ঘটিকাঃ কেম্বেলটাউন সিটি কাউন্সিল মেয়র জর্জ গ্রেসি প্রোগ্রামের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষনা করবেন;
– বিকেল ০১ঃ২০ ঘটিকাঃ মাল্টিকালচারাল থিমের ওপর কোরাশ গান (আল-ফয়সাল স্কুল);
– ১০ টি কালচারাল গ্রুপ এবং ব্যক্তি-শিল্পীদের ধারাবাহিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রাত ১০টা অবধি চলোমান থাকছে;
– থাকছে শিশুদের আর্ট কম্পিটিশন;
– সন্ধ্যা ০৬ঃ০০ ঘটিকা থেকে ০৬ঃ৪৫ ঘটিকাঃ ফেডারেল এবং স্টেট মিনিস্টারস, শ্যাডো মিনিস্টারস, এমপিস ইনস্পাইরেশনাল স্পিসেস ডেলিভার করবেন।

জনাব সফিক জানান যে দিবসটির উজ্জাপন স্মরণীয় করে রাখতে একটি স্মরণিকা প্রকাশিত হচ্ছে যেখানে স্থানীয় ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দেয়ার মাধ্যমে প্রমোশনের সুযোগ রয়েছে।

জনাব সফিক জানান যে অনুষ্ঠানটির একটি বড় এবং বিশেষ অংশের উপস্থাপনায় থাকছে অস্ট্রেলিয়ায় জন্মগ্রহন করা নতুন প্রজন্মের শিশু/কিশোর পৃথিবী এবং আমরিন।

গুরুত্বপূর্ণ এই মতবিনিময় অনুষ্ঠানটিতে মূল্যবান মতামত রাখেনঃ
ব্রাইয়ান লাউল, কাউন্সিলর মাসুদ চৌধুরী, কাউন্সিলর ইব্রাহিম খলিল মাসুদ, মোয়ানা গ্লেসি স্ট্রিকল্যান্ড, মনিরুল হক জর্জ, সাদাত হোসেন, ওয়ারেন স্মল, প্রকাশ হুমাগাইন, সৈয়দ আক্রাম উল্লাহ, নোমান আল শামীম, কামাল পাশা, সুদ্বিপ, আসমা আলম কাশফি, মাসুদ রানা, ইন্জিনিয়ার সাজ্জাদ সিদ্দিক, আবু বকর সিদ্দিক, হ্যারি আধিকারী, পূরবী পারমিতা বোস, মার্ভি খাজা, আফ্রিনা চৌধুরী, শাহানা চৌধুরী, আবদুস সোবহান, সেলিম কবির, রহমত উল্লাহ, মিলি ইসলাম, ডঃ রফিকুল ইসলাম, দেবেন্দ্র সাপকোটা, আবদুল্লাহ প্রমুখ

বিশেষভাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃত্ব সেলিমা বেগম, আবু তারিক, জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী আতিক হেলাল এবং মিতা হেলাল।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন আশিকুর রহমান এ্যাশ।

জনাব সফিক অংশগ্রহনকারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে ডিনারে অংশগ্রহনের আহ্বান জানান।

You may also like

বাংলা পাঠশালা পরিবার দিবস ২০২২ পালিত

গত ১৩ নভেম্বর সিডনির বারডিয়া উইকেন্ড বাংলা স্কুলে