তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বটে !

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বটে !

150
0

গাড়িতে ধাক্কা দেয়ার অভিযোগে রাজধানীর শাহবাগে এক বাস চালকের সঙ্গে ক্ষমতার দাপট দেখালেন একজন শিক্ষক। পঞ্চাশোর্ধ্ব বয়সী বাসচালককে তার (শিক্ষকের) পা ধরতে বাধ্য করলেন। যিনি নিজেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে দাবি করেছেন। এমনই একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।
তবে অভিযুক্ত ‌‘শিক্ষক’ এর নাম-পরিচয় জানা যায়নি। তিনি নিজের প্রাইভেটকারটিতে একটি স্টিকার ব্যবহার করেছেন। সাধারণত অনুরূপ স্টিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ব্যবহার করে থাকেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবন থেকে গাড়ির স্টিকারগুলো ইস্যু করা হয়।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, মুখে দাড়িওয়ালা পঞ্চাশোর্ধ্ব বয়সী এক ব্যক্তির শার্টের কলার ধরে নাজেহাল করছেন কালো পাঞ্জাবি পরিহিত এক ব্যক্তি। এসময় তিনি ওই লোকের শার্টের কলার ধরে এদিক সেদিক টেনে টেনে বলেন, ‌‌‘পুলিশ ডেকে তোকে মাইরা থানায় দিব, এখন আমি, ঢাকা ভার্সিটির গাড়ি এটা। ….শিক্ষক বসে আছে গাড়িতে, শিক্ষক, আমিও শিক্ষক। কোনো রাস্তার মাস্তান না আমি। এলাকার মাস্তান আমরা। ঢাকা ভার্সিটির মাস্তান। বুঝতে পারছোস। তুই গাড়িতে লাগাইছস। স্বীকার কর তুই লাগাইছিস। পায়ে ধইরা মাফ চা।’
পুরো সময় ধরে পঞ্চাশোর্ধ্ব বয়সী ব্যক্তিটি নিজের ভুলের জন্য ক্ষমা চাইলেও তাতে কান দেননি ওই ‌‘শিক্ষক’। এক পর্যায়ে সেই বৃদ্ধ পা ধরে মাফ চাইলেন, তিনি (শিক্ষক) বললেন, ‌‘যা এবার যা, সাবধানে গাড়ি চালাইবি। বুঝেশুনে গাড়ি চালাইবি।’

এরপর ওই ‘শিক্ষক’ নিজের গাড়িতে করে স্থান ত্যাগ করেন।

ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হওয়ার পর থেকে নিন্দার ঝড় বইছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও শিক্ষক পরিচয়ধারী এ ব্যক্তির শাস্তি দাবি করেছেন। কেউ কেউ থাকে ধরে থানায় সোপর্দেরও দাবি তুলেন। বিষয়টিকে কোনোভাবেই ক্ষমার যোগ্য নয় বলে মনে করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। তারা ওই ব্যক্তি যদি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হয়ে থাকেন তাহলে তার শাস্তি দাবি করেছেন।

এদিকে গভীর রাতে ঘটনাটি ভাইরাল হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। ( জাগোনিউজ২৪ডটকম )

শিক্ষক জাতিকে কলঙ্কিত করলেন আপনি।😓😓বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষকের কাছে এই জঘন্য ব্যবহার আশা করিনি।বাংলাদেশের প্রত্যেকটি শিক্ষার্থীর প্রশ্ন,শিক্ষক মানেতো মানুষ গড়ার কারিগর তাইনা? তাহলে আপনার থেকে আমরা কি শিখবো স্যার? আপনি না শিক্ষক? তাহলে আপনি আবার মস্তান হলেন কিভাবে? আপনার বাবার বয়সী একজন ড্রাইভারেকে কিভাবে আপনার পায়ে ধরালেন স্যার? মানলাম এই বাস চালকের অপরাধ কিন্তু তাই বলে কি এই চালক মানুষ না? ওনাকে কি আপনার মানুষ মনে হয়নি স্যার?স্যার আপনি যদি মাস্তান হন তাহলে আমরা কি হব স্যার?স্যার আপনি দয়া করে কোথাও শিক্ষক এর পরিচর দিয়েননা স্যার, যদি দেন তাহলে যে আমাদের শিক্ষক জাতির অপমান হবে স্যার।

Posted by Naeem Farhan on Friday, June 16, 2017

Facebook Comments

You may also like

বাংলাদেশে নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মোবাশ্বার হাসান নিখোঁজ

বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের