সিডনীতে জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস-২০২২ উদ্‌যাপন

সিডনীতে জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস-২০২২ উদ্‌যাপন

সিডনীস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের উদ্যোগে ১৭ মার্চ ২০২২ তারিখে উৎসাহ-উদ্দীপনা ও আনন্দমুখর পরিবেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত হয়েছে।

সকালে কনসাল জেনারেল-এর বাস ভবন “বাংলাদেশ হাউস”-এ জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসটির কর্মসূচী শুরু হয়। পরে সন্ধ্যায় কনস্যুলেট ভবনে এক আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

সন্ধ্যার অনুষ্ঠানটি শুরু হয় জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে। এর পর ছিল পবিত্র ধর্মগ্রন্থসমূহ থেকে পাঠ, জাতীয় নেতৃবৃন্দের দেয়া বাণীসমূহ পাঠ, বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর অলোকপাত করে কনসাল জেনারেলের বক্তব্য, ভিডিও ডকুমেন্টারী প্রদর্শন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানের পাশাপাশি কনস্যুলেট প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মভিত্তিক একটি আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

কনসাল জেনারেল খন্দকার মাসুদুল আলম তার স্বাগত বক্তব্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অনন্য অবদান, রাজনৈতিক প্রজ্ঞা এবং অপরিসীম ত্যাগ গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশের ইতিহাস বিনির্মাণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবিস্মরণীয় ও যুগান্তকারী নেতৃত্বের ভূমিকার প্রতি আলোকপাত করে গভীর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ ও লালন এবং শিশুদের কাছে দেশের প্রকৃত ইতিহাস উপস্থাপন করার জন্য সবাইকে আহবান জানান।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে প্রবাসী শিশুদের নিয়ে কনস্যুলেট কর্তৃক সাম্প্রতিক সময়ে আয়োজিত “মেলডী অফ বাংলাদেশ” সংগীত প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের নাম ঘোষনা করা হয় ও তাদেরকে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট দিয়ে পুরষ্কৃত করা হয়। প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের সহ অন্যান্য শিশু কিশোরদের

অংশগ্রহনে গান, কবিতা ও নৃত্যে সাজানো একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনের কর্মসূচী শেষ হয়।

এ অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী এবং বিভিন্ন সাহিত্য-সংস্কৃতি ও শিল্পগোষ্ঠি ছাড়াও বিভিন্ন পেশাভিত্তিক অঙ্গসংগঠনসমুহের নেতৃস্থানীয় প্রতিনিধিবৃন্দ ও গণমাধ্যমের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

 

 

You may also like

ডক্টর মুহাম্মদ ইউনুস মিথ্যা বলছেন

ফজলুল বারী:পদ্মা সেতুর উদ্বোধন পর্ব থেকে ডক্টর মুহাম্মদ